বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ১২:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নোটিশ :
Wellcome to our website...

রায়পুরায় টানা ৭ম বার রাজু এমপির বিজয়ের লক্ষ্যে উঠান বৈঠক

সাদ্দাম উদ্দীন রাজ, রায়পুরা উপজেলা নরসিংদী / ১৮৫ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২৩

আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রাখে ভোটারদের মাঝে বাড়ছে উত্তাপ ইতিমধ্যে নরসিংদী-৫(রায়পুরা) আসনে নৌকার মনোনিত প্রার্থী বর্ষীয়ান রাজনীতিবীদ বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর সাবেক সফল মন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপিকে ৭ম বার বিজয়ী করার লক্ষ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে মতবিনিময় সভা হয়েছে।
বুধবার বিকেলে উপজেলা মরজাল ওয়ার্ডার পার্কে এ মতবিনিময় সভা হয়।
মতবিনিময় সভায় উপজেলা আ’ লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এড্য. ইউনুস আলী ভূইয়া সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ৭ম বারের নৌকার মনোনিত প্রার্থী, বর্ষীয়ান রাজনীতিবীদ, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট সহচর, সাবেক সফল মন্ত্রী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি।
উপজেলা আ’ লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং সাংসদ পুত্র রাজিব আহমেদ পার্থ সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লায়লা কানিজ লাকি, অলিপুরা ইউপি চেয়ারম্যান এবং উপজেলা চেয়ারম্যান ফোরামের সভাপতি এবং আল-আমিন ভুইয়া (মাসুদ)ও সাধারণ সম্পাদক এবং শ্রীনগর ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজ মোর্শেদ খান রাসেল, পাড়াতলী ইউপি চেয়ারম্যান ফেরদৌস কামাল জুয়েল প্রমূখ। উপস্থিত ছিলেন, পৌর মেয়র মো জামাল মোল্লা, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব আলম শাহিন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোঃ মিলন মাষ্টার প্রমূখ।
এছাড়াও ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ ইউপি সদস্যরা, উপজেলা আওয়ামী লীগের উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড পর্যায়ের আওয়ামী লীগের তৃনমুলের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তব্যে রাজি উদ্দিন আহমেদ রাজি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রহমানের হাত ধরে ৫৩ বছরের রাজনীতিতে তৃনমুলের নেতাকর্মীদের ভালোবাসা নিয়ে এখনো বেঁচে আছি। ১৯৯৬ সালে দেড় কিলোমিটার পাকা রাস্তা দিয়ে শুরু করেছিলাম। এখন পর্যন্ত রাস্তা ঘাটসহ অবকাঠামোগত অনেক উন্নয়ন ব্যাপক পরিবর্তন করতে সক্ষম হই। এ নির্বাচন ওই আমার শেষ নির্বাচন। আগামীতে মেঘনা নদীতে ব্রিজ নির্মাণ, চরে থানা স্থাপনসহ অসমাপ্ত কাজগুলো করতে চাই। স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানকে টাকা খরচ করে আমিই উপজেলা চেয়ারম্যান বানিয়ে ছিলাম। সে আমার হাত ধরে রাজনীতিতে এসে ছিলো এখন সে নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছে। ৫৩ বছরের রাজনীতিতে চাওয়া পাওয়ার কিছুই নেই যা করেছি মানুষের জন্যই করেছি। রায়পুরার মানুষের এবং তৃনমুল নেতাকর্মীদের অন্তরে হৃদয়ে ভালবাসা টাই চরম পাওয়া। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আমার প্রতি পূর্ণ আস্থা রেখেছেন। আশাকরি আগামীতেও আপনারা আমার পাশে থাকবেন। আগামী নির্বাচনে সবাই সকাল সকাল ভোট কেন্দ্রে এসে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জয় যুক্ত করে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করুন।”


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর